রাজাপুরের সেই ঝুঁকিপূর্ণ ষ্টীল ব্রিজ সংস্কার করলেন ওসি

মো. নাঈম ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার বধ্যভূমি সংলগ্ন সংযোগকারী একমাত্র বেইলি সেতুটির সংস্কার করে দিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম। ব্যক্তিগত উদ্যোগে সোমবার ( মে) রাতে সেতুটি সংস্কার করে উপজেলাবাসীর প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি

সোমবার দুপুরে ঝুঁকিপূর্ণ ষ্টীল ব্রিজটি নিয়ে রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাবের সকল সদস্য বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ করেন এর পর থেকে সেতুর দুর্ভোগের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। বিষয়টি নজরে আসে রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলামের। এরপর ব্যক্তিগত উদ্যোগে স্থানীয় ওয়ার্কশপের সঙ্গে কথা বলে সংস্কার করেন তিনি।  

জানা গেছে, ষ্টীল ব্রিজটির একপ্রান্তে একটি স্লাব ভেঙে গর্তের সৃষ্টি হয়। ফলে প্রতিনিয়তই সেখানে ছোটখাটো দুর্ঘটনা ঘটত

এদিকে সড়ক জনপদ বলছে সেতুটি তাদের আওতায় না। এলজিইডিও বলছে সেতুটি তাদের আওতায় নয়। দুই বিভাগের ঠেলাঠেলিতে সংস্কার হচ্ছিল না সেতুটি। নিয়ে এলাকাবাসীর প্রশ্ন তাহলে সেতুটি কার দায়িত্বে? এর সংস্কার কোন দফতর করবে? তবে সব প্রশ্নের জবাব দিলেন ওসি মো. শহিদুল ইসলাম

শহিদুল ইসলাম জানান, জনসাধারণের সুবিধার্থে এবং দুর্ঘটনামুক্ত রাখতে মানবিক দিক থেকে সামান্য চেষ্টা করেছি। যেহেতু সেতুটি দিয়ে প্রতিদিন হাজারও মানুষ যাতায়াত করে, তাই বিপদমুক্ত থাকতে ব্যক্তিগত উদ্যোগে মেরামত করেছি

বিষয়ে রাজাপুর এলজিইডি প্রকৌশলী মো. গোলাম মোস্তফা জানান, সড়ক এলজিইডির হলেও স্টিল ব্রিজের দায়িত্ব আমাদের নয়

ঝালকাঠি সড়ক জনপদের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. হুমায়ুন কবির বলেন, সড়ক আমাদের নয়, তাই স্টিল সেতুর দায়ও আমাদের নয়